,

২৬ ফেব্রুয়ারির পর বন্ধ টিকার প্রথম ডোজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২৬ ফেব্রুয়ারির পর কেউ করোনা টিকার প্রথম ডোজ পাবে না বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জানান, ওই দিন দেয়া হবে এক কোটি ডোজ টিকা। তবে চালু থাকবে দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ দেয়া। দেশের ১২ কোটি মানুষকে টিকা দেয়ার লক্ষ সরকারের। ২৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তা পূরণ হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এরই মধ্যে টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছে ১০ কোটির বেশি মানুষ।

বাংলাদেশে গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ দেয়া শুরু হয়। দুই মাস পর ৮ এপ্রিল শুরু হয় দ্বিতীয় ডোজ দেয়ার কার্যক্রম। আর গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর তৃতীয় ডোজ বা বুস্টার ডোজ দেয়া শুরু করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, সোমবার পর্যন্ত সারাদেশে করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন ১০ কোটি নয় লাখ ১১ হাজারের বেশি মানুষ, যা দেশের মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশের মত।

তাদের মধ্যে সাত কোটি ১৪ লাখ ৭৫ হাজারের বেশি মানুষ দ্বিতীয় ডোজ এবং ২৬ লাখ ৯৪ হাজারের বেশি মানুষ তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ পেয়েছেন।

এর মধ্যে গতবছরের সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে ৭৬ লাখ ডোজের বেশি টিকা দেয়া হয়েছিল এক দিনে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাওয়া তথ্যে দেখা যায়, গত ৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সব মিলিয়ে ২৭ কোটি ৬৭ লাখ ২৪ হাজার ৭২০ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা দেশে এসেছে।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort