,

১০ টাকার জন্য ‘শিশুর গলা কেটে’ হত্যা

জেলা প্রতিনিধি, চুয়াডাঙ্গা: মাত্র ১০ টাকার জন্য ইয়ামিন হোসেন নামে এক শিশুর গলা কেটে হত্যা করেছে প্রতিবেশী জাহিদ হাসান (১৮)।

শনিবার দুপুরে দামুড়হুদা উপজেলার কানাইডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইয়ামিন হোসেন (৯) কানাইডাঙ্গা গ্রামের সেলিম রেজার ছেলে এবং কানাইডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল।

দামুড়হুদা থানার ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, শনিবার বেলা ৩টার দিকে কানাইডাঙ্গা গ্রামের একটি আমবাগানে ইয়ামিন হোসেনের লাশ পাওয়া যায়। এলাকার লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে।

এলাকাবাসী বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পেরেছি গ্রামের আশাদুল ইসলামের ছেলে জাহিদ হাসান ৩০ টাকা দিয়ে ইয়ামিনকে মুড়ি কিনতে দোকানে পাঠায়। ইয়ামিন ২০ টাকার মুড়ি কেনে এবং বাকি ১০ টাকা সে নিজে কিছু কিনে খায়। ইয়ামিনের কাছে জাহিদ হাসান ১০ টাকা ফেরত চাইলে ইয়ামিন দিতে পারে না। জাহিদ এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ইয়ামিনকে মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ফেলে রাখে।

আরও বলেন, খবর পেয়ে বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে আমবাগানের ভেতর মৃত অবস্থায় পায় ইয়ামিনকে। তার গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দেওয়া ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মারা গেছে ইয়ামিন। পুলিশ জাহিদ হাসানকে আটক করতে পারেনি। ময়না তদন্তের জন্য লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort