,

সেশনজটে হতাশায় বশেমুরবিপ্রবি ‘ছাত্রীর আত্মহত্যা’

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) অর্থনীতি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী পল্লবী মণ্ডলের (২৩) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, করোনার কারণে পড়াশোনা শেষ না হওয়ায় হতাশাগ্রস্ত হয়ে ঐ শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন।

শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার শুকুরমারি এলাকা থেকে পল্লবীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওবায়দুর রহমান বলেন,  রাতে নানীর সঙ্গে ঘুমিয়েছিল পল্লবী। সকালে রান্নাঘরে গিয়ে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছি। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, হতাশাগ্রস্ত হয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি জুবাইদুর রহমান বলেন, পারিবারিক সূত্রে জেনেছি, সেশনজটের কারণে পল্লবী মণ্ডল কিছুদিন ধরে হতাশাগ্রস্ত ছিলেন। তার মা এসেছিলেন এ বিষয়ে কথা বলতে। শুনেছি রাত জেগে বিসিএসের প্রস্তুতি নিতেন পল্লবী। কিন্তু করোনা ভাইরাসের প্রকোপে সৃষ্ট সেশনজটে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন। এজন্য কিছু দিন আগে মিডটার্ম পরীক্ষায় পর্যন্ত ঐ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে পারেনি। তার এমন অকালমৃত্যুতে আমরা শোকাহত।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort