,

মুজিববর্ষে গোপালগঞ্জে ২০ হাজার মানুষ পাচ্ছে সুপেয় পানি

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: মুজিববর্ষ উপলক্ষে গোপালগঞ্জের ২০ হাজার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে সুপেয় পানির আওতায় এনেছে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর প্রায় সাত কোটি টাকা ব্যয়ে ২৯টি পুকুর খনন, সংস্কারসহ প্রত্যেকটিতে আধুনিক পিএসএফ স্থাপন করেছে। এসব ফিল্টারের নিরাপদ পানি সরবরাহ করা হচ্ছে।

গোপালগঞ্জ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক চন্দ্র তালুকদার জনান, গোপালগঞ্জ জেলার কিছু অংশে সুপেয় পানির অভাব রয়েছে। এ ছাড়া মাটির নিম্নস্তরে মাত্রাতিরিক্ত পাথর থাকায় এসব অঞ্চলে গভীর নলকূপ স্থাপন করা সম্ভব হয় না। ওই সব এলাকার অন্তত ১০ ভাগ মানুষ পানিবাহিত রোগে ভুগতেন। তাই জেলার ওই অংশের মানুষের নিরাপদ পানি নিশ্চিত করতে মুজিববর্ষ উপলক্ষে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর পল্লী পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় গোপালগঞ্জের পাঁচটি উপজেলায় ২৯টি পুকুর খনন ও সংস্কার করেছে। পুকুরের প্রত্যেকটিতে সংযুক্ত করা হয়েছে সৌরশক্তিচালিত আধুনিক পন্ড স্যান্ড ফিল্টার (পিএসএফ)। প্রতিটি ফিল্টার থেকে দিনে ১০ হাজার লিটার বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা হচ্ছে। এতে নভেম্বর থেকেই সুপেয় পানির সুবিধা পাচ্ছে জেলার অন্তত ২০ হাজার মানুষ।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার উপসহকারী প্রকৌশলী রতন কুমার সাহা বলেন, প্রত্যেকটি ফিল্টার থেকে বিনামূল্যে ২০০ থেকে ২৫০টি পরিবার সুপেয় পানি পাচ্ছে। আধুনিক এই ফিল্টারের নিরাপদ পানি পান করে ওইসব এলাকার প্রতিটি মানুষ সুস্থ ও সুন্দর জীবনযাপন করছেন।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort