,

ভোর থেকে রাজধানীতে ঝুম বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক: তখন নগরবাসী ঘুম ভাঙেনি। হঠাৎ দমকা হাওয়া। হাওয়ার দাপটের সঙ্গে বজ্রের ধ্বনি। কোথাও কোথাও যেনো বাজ পড়ল। যারা ঘরের জানালা খুলে ঘুমিয়েছিলেন আচমকা শব্দে তাদের কারও ঘুম ভাঙল। ঘুমের আড়মোড়া ভেঙে জানালা লাগিয়ে দেন তারা। ততক্ষণে এক পশলা বৃষ্টি হয়ে গেছে।

ভোর ৬টা থেকে বৃষ্টি শুরু, যা চলে সকাল আটটা পর্যন্ত। এখন হালকা বৃষ্টি পড়ছে। টানা বৃষ্টিতে ঢাকায় কোনো কোনো সড়কে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা।

ঈদের দ্বিতীয় দিন আজ। কেউ কেউ ভেবেছিলেন, সকাল সকাল আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যাবেন। পরিবারের সবাইকে নিয়ে কেউবা বিনোদনকেন্দ্রে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন। তাদের পরিকল্পনা ভেস্তে যেতে বসেছে। যদিও দিন বাড়তে থাকলে বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমে আসতে শুরু করেছে। তবে বৃষ্টি নেই হয়ে যায়নি। ঝরছে টিপটিপ করে। যাকে বলে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি।

বৃষ্টিতে রাজধানীর বাসিন্দাদের খুব যে একটা ক্ষতি হয়েছে সেটা বলা যায় না। কেননা, এখনো সবার মনে ঈদের আমেজ। অফিসে কিংবা কর্মস্থলে যাওয়ার তাগিদ নেই। তাই বৃষ্টির সকালটায় আরামদায়ক আলস্যে কাটিয়ে দিচ্ছেন কেউ কেউ। বৃষ্টির পরশে বয়ে যাওয়া ঠাণ্ডা হাওয়ায় ঘুমকাতুরেদের ঘুম ভাঙতে খানিকটা দেরি হবে বুঝি!

এদিকে আবহাওয়া অফিস বলছে রোদ-বৃষ্টি আর মেঘের খেলা সারাদিনই থাকবে। আগামী কালকের আবহাওয়া গুমোট থাকবে। আশার কথা হচ্ছে, কাল মেঘ কেটে গিয়ে সূর্যের দেখা পাওয়া যাবে। সূর্য উঁকি দিতে পারে আজও। তবে সেটা এই সকালে নয়। দুপুরের দিকে। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস| সর্বনিম্ন ২৫.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসের গড় গতি ঘণ্টায় ১২ কিলোমিটার বেগে বইছে। গতকালের সকালে বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৮৪.০% । বিকালের আর্দ্রতা ছিল ৬৭.০%।

আজ বুধবার ৪ এপ্রিল ঢাকা ও তার আশপাশের এলাকার আবহাওয়ার অফিসের পূর্বাভাস বলছে, আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। সেই সঙ্গে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এই এলাকায় বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। আগামীকাল থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হওয়ার কথা রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort