,

ভোটের মাঠে স্বামী-স্ত্রীর লড়াই

জেলা প্রতিনিধি, লালমনিরহাট: লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে স্বামী ও স্ত্রী দুজনই চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন।

তৃতীয় ধাপের এই ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়নের শ্রুতিধ্বর গ্রামের লিয়াকত হোসেনের ছেলে মো. ফরহাদ হোসেন ও তার স্ত্রী মোছা. শামীমা আকতার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

জানা গেছে, ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে এখন স্বামী-স্ত্রী দুজনেরই প্রচার চালাচ্ছেন। তারা ভোটারদের কাছে গিয়ে ভোট চাইছেন। স্বামী-স্ত্রীর একই পদে প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি ওই ইউনিয়নের ভোটারদের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে।

ওই ইউনিয়নের বাসিন্দা ব্যবসায়ী মো. জামাল উদ্দিন বলেন, ‘ফরহাদ মাস্টার ও তার স্ত্রী শামীমা দুজনই নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন শুনেছি। আগামী ১১ তারিখ প্রার্থী বাছাইয়ে বোঝা যাবে তারা দু’জনেই থাকেন কি না। ’

আইরিন বেগম নামে ওই ইউনিয়নের এক ভোটার বলেন, ‘তারা স্বামী-স্ত্রী দুজনই ভোট করছেন শুনেছি। তবে স্বামী ফরহাদ হোসেন ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করলেও তার স্ত্রী শামিমাকে ভোট চাইতে দেখিনি।’

চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘আমি পরপর দুবার চেয়ারম্যান নির্বাচন করেছি। নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে ভোটাররা আমাকে নির্বাচিত করবেন বলে আশাবাদী।’

স্ত্রীর প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে ফরহাদ বলেন, ‘বিকল্প প্রার্থী হিসেবে তিনি স্ত্রীকে প্রার্থী করিয়েছেন। এটি একধরনের নির্বাচনী কৌশল।’

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুবা রহমানের কার্যালয় সূত্র জানায়, গত ২৮ নভেম্বর কালীগঞ্জ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। চেয়ারম্যান পদে যাচাইবাছাই শেষে মোট ৫৪ জন প্রার্থী রয়েছেন।

নির্বাচনে ভোটমারী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আহাদুল হোসেন চৌধুরী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আলিফ উদ্দিন, স্বতন্ত্র হিসেবে শামিমুল ইসলাম ও ওই স্বামী-স্ত্রীসহ মোট পাঁচ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ১১ নভেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort