,

বৃদ্ধা মাকে মারধর, ছেলের নামে থানায় অভিযোগ

সাহারা খাতুন

জেলা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও:  ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আখানগর ইউনিয়নে বৃদ্ধা মাকে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছেলের বিরুদ্ধে।

নির্যাতিত বৃদ্ধা ওই ইউনিয়নের দক্ষিণ ঝড়গাঁও এলাকার মৃত শাহাজাত আলীর স্ত্রী।

বুধবার (১৩ এপ্রিল) রাতে ছেলে আকবর আলী (৪০), পুত্রবধূ আমেনা বেগম (৩৫), ছেলের শ্বশুর মো. আলমের (৫০) বিরুদ্ধে রুহিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী বৃদ্ধা সাহারা খাতুন (৬১)।

নির্যাতিত ওই বৃদ্ধা অভিযোগে বলেন, প্রায় সময় তার ছেলে আকবর আলী ও পুত্রবধূ আমেনা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার পাশাপাশি শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন। বৃদ্ধার অভিযোগ, ছেলে তার শ্বশুর আলমের কু-পরামর্শে প্রায় সময় তাকে খাবার দেয় না এবং তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন সময় তাকে মারধর করেন।  মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ঘর থেকে একটি শাবলকে কেন্দ্র করে ছেলের বউ তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। প্রতিবাদ করতেই পাশে থাকা কাঠ দিয়ে ছেলে আকবর তার মাথায় আঘাত করেন। এ সময় মাটিতে পড়ে গেলে ছেলের বউ বৃদ্ধার মাথার চুল ধরে টানাহেঁচড়া করলে বৃদ্ধার চিৎকার শুনে তার প্রতিবন্ধী মেয়ে মাকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে আসেন। তখন ছেলের বউ প্রতিবন্ধী মেয়েকে ও মারধর করেন। পরে তাদের চিৎকারের স্থানীয়রা এসে উদ্ধার করেন।

ওই বৃদ্ধার মেয়ে জহুরা ও মনসুরা বেগম বলেন, আমার ভাইয়ের বউ ইতোপূর্বেও আমার মাকে মারধর করে আহত করেছেন। কিছুদিন আগেও মায়ের হাতের আঙ্গুল ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে দিয়েছেন। পরে ডাক্তারের কাছে নিয়ে সেলাই করা হয়। মা এখন ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

অন্যদিকে মারধরের কথা অস্বীকার করে ছেলে আকবর আলী জানান, তিনি পরিবারের একমাত্র ছেলে। তাই পরিবারের কারো সঙ্গেই কোনো ধরনের সমস্যা হলেই সে দায় তার ওপর চাপানো হয়।

বৃদ্ধা সাহারা খাতুনকে নির্যাতনের বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানান, রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) শহীদুর রহমান শহিদ। তদন্ত শেষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort