,

ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারণ

A smartphone user shows the Facebook application on his phone in the central Bosnian town of Zenica, in this photo illustration, May 2, 2013. Facebook Inc's mobile advertising revenue growth gained momentum in the first three months of the year as the social network sold more ads to users on smartphones and tablets, partially offsetting higher spending which weighed on profits. REUTERS/Dado Ruvic (BOSNIA AND HERZEGOVINA - Tags: SOCIETY SCIENCE TECHNOLOGY BUSINESS) - RTXZ81J

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক: ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়া বর্তমানে বেশ পরিচিত একটি বিষয়ে পরিণত হয়েছে। অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী বুঝতেও পারেন না, কি কারণে তাদের একাউন্ট ডিজেবল হয়ে গিয়েছে। ফেসবুক কমিনিউটি স্ট্যান্ডার্ড এক্ষেত্রে মূল ভূমিকা পালন করে। এই পোস্টে আমরা ফেসবুক আইডি ডিজেবল হওয়ার কিছু সম্ভাব্য কারণ জানবো। নিচে প্রদত্ত ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়ার কারণগুলো জেনে নিন ও আপনার ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হওয়া থেকে রক্ষা করতে এসব সম্পর্কে সচেতন থাকুন।

একাউন্টের নামে সমস্যা

ফেসবুকে স্টাইলিশ ফন্টের অসত্য নাম কিংবা ব্যক্তির নাম নয়, এমন কোনো নাম ব্যবহার করলে একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। তাই ফেসবুকে সবসময় সাধারণ লেখার নাম ব্যবহার করুন। ফেসবুক আইডির নাম পরিবর্তন করার নিয়ম বেশ সহজ। তাই আপনি চাইলে নাম পরিবর্তন করতে পারেন। এছাড়া মানুষের নাম নয়, যেমনঃ Cute, Smart, Angel, ইত্যাদি শব্দগুলো ফেসবুক একাউন্টের নামে ব্যবহারের কারণেও ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। আবার কোনো প্রতিষ্ঠানের নামে ফেসবুক একাউন্ট খুললে সেটি ফেসবুক বন্ধ করে দিতে পারে। কোনো প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার নামে তাই একাউন্ট তৈরি না করে বরং ফেসবুক পেজ ব্যবহার করুন।

মাত্রাতিরিক্ত পোস্ট করা

ফেসবুকে নিজের প্রোফাইলে, পেজে কিংবা গ্রুপে মাত্রাতিরিক্ত বা অস্বাভাবিক হারে পোস্ট করার কারণে ফেসবুক ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। ফেসবুক যাতে অযথা কনটেন্ট ভর্তি হয়ে না যায়, সে বিষয় নিশ্চিত করতে অনেক সময় ফেসবুক ওয়ার্নিং দিয়ে থাকে। এই ওয়ার্নিং অবজ্ঞা করে পোস্ট করলে একাউন্ট ডিজেবল মত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটতে পারে।

নকল পরিচয় ব্যবহার

ফেসবুকে সবসময় আসল পরিচয় ব্যবহার করা উচিত। কোনো সময় একাউন্টে আইডেন্টিটি ভেরিফিকেশন এর প্রয়োজন হলে সেক্ষেত্রে আপনার যেকোনো ডকুমেন্ট প্রদান করে লক হয়ে যাওয়া একাউন্ট আনলক করতে পারবেন। যদি ভুয়া তথ্য দিয়ে ফেসবুক একাউন্ট খোলেন তাহলে আপনার কাছে সে সম্পর্কিত কোনো ডকুমেন্ট থাকবেনা। তখন একাউন্ট আর উদ্ধার করতে পারবেন না।

অতিরিক্ত গ্রুপ জয়েন করা

একই সাথে অনেক ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করাকে ফেসবুক স্পামিং হিসেবে যাচাই করতে পারে। এমনকি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে অনেক পেজে লাইক দিলে সেক্ষেত্রেও ফেসবুক একাউন্ট ব্লক হয়ে যেতে পারে। তাই অস্বাভাবিক হারে অতিরিক্ত পরিমাণে গ্রুপে জয়েন হওয়া বা পেজে লাইক দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

অনুপযুক্ত কনটেন্ট পোস্ট

ফেসবুকে যে ধরনের কনটেন্ট এলাউড না সে ধরনের কনটেন্ট পোস্ট করার ফলে কোনো নোটিশ ছাড়া ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। ফেসবুক যে ধরনের কনটেন্ট অনুপযুক্ত হিসেবে ধরা হয়, সেগুলো হলোঃ

  • নগ্নতা বা সেক্সুয়ালি সাজেস্টভ কনটেন্ট
  • হেইট স্পিচ, হমকি বা কোনো নির্দিষ্ট ব্যাক্তি বা গোষ্টির উপর আক্রমণাত্মক পোস্ট
  • নিজের ক্ষতি বা অন্যের প্রতি সহিংতা প্রদর্শন করে এমন কনটেন্ট

আবার ফেসবুক সমর্থন করেনা এমন ওয়েবসাইটের লিংক শেয়ার করা কারণেও আইডি ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। উল্লেখিত যেকোনো ধরনের কনটেন্ট মেসেঞ্জারে সেন্ড করলে বা ফেসবুকে পোস্ট করলে আইডি ডিজেবল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অস্বাভাবিক পরিমাণে অতিরিক্ত লাইক / কমেন্ট / শেয়ার

আপনি কি জানেন ফেসবুক অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণেও আপনার ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যেতে পারে? স্বাভাবিকের চেয়ে অধিক ফেসবুকে লাইক, কমেন্ট বা শেয়ারের ফলে প্রথমে ওয়ার্নিং প্রদান করে ফেসবুক। এরপরও যদি ব্যবহারকারী একইভাবে ফেসবুক ব্যবহার করতে থাকে, তবে উক্ত আইডি ডিজেবল হয়ে যেতে পারে।

একই লিংক বারবার শেয়ার

কোনো লিংক বারবার শেয়ার করার ফলেও ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যেতে পারে। মূলত কোনো ধরনের স্পামিং রুখে দিতে এই ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করে ফেসবুকে।

ভিপিএন ব্যবহার

ভিপিএন ব্যবহার করে ফেসবুক ব্যবহার কিছুটা ঝুঁকিপূর্ণ। যেহেতু ভিপিএন ব্যবহারে লোকেশন পরিবর্তন হয়ে যায়, তাই এই পরিবর্তন ফেসবুক ও আমলে নেয়। আর যেহেতু একজন মানুষের পক্ষে খুব দ্রুত স্থান পরিবর্তন সম্ভব নয়, তাই অনেক সময় ভিপিএন ব্যবহার করে ফেসবুক ব্যবহার করলে সেটিকে হ্যাকিং এটেম্পট বলে ধরে নেয় ফেসবুক।

এই কারণে ভিপিএন ব্যবহার করে ফেসবুক ব্যবহারের ক্ষেত্রে অধিকাংশ সময় ভেরিফিকেশন বা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হন ব্যবহারকারী। এভাবে হতে থাকলে এবং ফেসবুকের প্রশ্নের যথাযথ উত্তর দিতে না পারলে একাউন্টের নিয়ন্ত্রণ হারাতে পারেন ব্যবহারকারী।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort