,

দোকানপাট ভাঙচুর-উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে অধিগ্রহণের বাইরে দোকানপাট ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ভাঙচুর ও উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগীরা।

রোববার সকাল ১০টায় ওই সড়কের বানিয়ারচরে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ১০-১২ দিন আগে গোপালগঞ্জ-টেকেরহাট সড়কের সম্প্রসারণ কাজ শুরু করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। ডিপিপিতে দেওয়া নকশা অনুসারে সড়কের অ্যালাইনমেন্ট নির্ধারণ করা হয়। সে অনুযায়ী বেশ কিছু স্থাপনা ও দোকানপাট উচ্ছেদ করা হয়। আবার স্বেচ্ছায় অনেকে তাদের স্থাপনা ও দোকানপাট সরিয়ে নেন। কিন্তু আকস্মিকভাবে সড়ক ও জনপথ বিভাগ উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ করে দেয়।

বৃহস্পতিবার রহস্যজনক কারণে ওই সড়কে পূর্বের অ্যালাইনমেন্ট থেকে প্রায় ১৫০ ফুট পূর্বে সরে এসে নতুন করে অ্যালাইনমেন্ট নির্ধারণ করে। কোনো ঘোষণা বা নোটিশ ছাড়া অন্তত শতাধিক দোকানপাট  ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করা হয়।

বানিয়ারচরের নীহার রঞ্জন হীরা ও বিনয় মল্লিক বলেন, সড়কের মূল অ্যালাইনমেন্ট থেকে সরে আসায় মহাসড়কের ওই স্থানে বাঁকা হবে। এছাড়া বানিয়ারচরের ঐতিহ্যবাহী বৌ-বাজারটিও উচ্ছেদ হয়ে যাবে।

তাদের অভিযোগ, সরকারদলীয় কেন্দ্রীয় একজন প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতার আস্থাভাজন   বানিয়ারচরের জোস্ন্যা মজুমদার ও গৌর সরকারের দোকানপাট এবং মার্কেট রক্ষা করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সড়কের মূল অ্যালাইনমেন্ট সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। আমাদের দাবি ডিপিপিতে যেভাবে অ্যালাইনমেন্ট নির্ধারণ করা আছে, সেভাবে কাজ করা হোক।

গোপালগঞ্জ সওজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহম্মাদ জাহিদ হোসেন বলেন, স্থানীয় প্রশাসন ও আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে ঠিক করব মহাসড়কের কাজটি কীভাবে দ্রুত সময়ের মধ্যে সুন্দরভাবে করা যায়। উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়নের জন্য স্থানীয় জনগণও যাতে কম ক্ষতির সম্মুখীন হয় তা আমরা বিবেচনায় রাখব।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort