,

টাকা তোলা নিয়ে হিজড়া সাদিয়াকে মারধর

জেলা প্রতিনিধি, রাজবাড়ী: বাজারে টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দির হিজড়া সম্প্রদায়ের প্রধান সাদিয়া আক্তারকে মারধর করেছে অপরপক্ষের হিজড়া মোজাহার ওরফে সুমি। এ ঘটনায় সাদিয়া আক্তার বাদী হয়ে বালিয়াকান্দি থানায় চারজনের নাম উল্লেখ করে একটি এজাহার দায়ের করেছেন।

এজাহার দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বালিয়াকান্দি থানার ডিউটি অফিসার এএসআই নাসিমা পারভীন।

বৃহস্পতিবার সকালে বালিয়াকান্দির নবাবপুর ইউনিয়নের সোনাপুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় মোজাহার হিজলা তার ভাই ও অজ্ঞাতনামা আরও ৫-৬ জন মিলে সাদিয়া ও তার দলে থাকা বেশ কয়েকজনকে মারধর করে।

মামলার বাদী সাদিয়া আক্তার বলেন, সোনাপুর বাজারটি প্রায় ২০ বছর ধরে আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আমরা বালিয়াকান্দির অনেক হিজড়া ওই বাজার থেকে টাকা তুলে জীবনযাপন করে থাকি। সে নিয়ম অনুযায়ী বৃহস্পতিবার সকালে আমরা টাকা তুলতে গেলে হিজড়া মোজাহার ওরফে সুমি সে তার দলবল নিয়ে প্রথমে আমাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। আমরা তাদের গালিগালাজ না করার জন্য অনুরোধ করলে তারা আমাদের ওপর আরও বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে পড়ে এবং একপর্যায়ে তারা আমার বুকে, পিঠে ও মাজায় লাথি মারতে থাকে।

তিনি বলেন, আমার সঙ্গে থাকা হিজড়া সদস্য পরী এবং হ্যাপি ঠেকাতে গেলে তাদেরও বেদম মারধর করে তারা। আমাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তারা আমাদের হত্যার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। তখন বিষয়টি আমরা তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, নবাবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও হাট মালিক পক্ষকে জানাই। পরে বালিয়াকান্দি থানায় এসে একটি এজাহার দায়ের করি। এজাহারে মোজাহারসহ আরও তিনজনের নাম উল্লেখ করেছি। তারা হলেন- গোলাপ (২৮), শাহিন (৪২) ও রুবেল (২৪)।

এ বিষয়ে বালিয়াকান্দি থানার এএসআই নাসিমা পারভীন বলেন, এ ঘটনায় হিজড়া সাদিয়া একটি এজাহার দায়ের করেছেন। এজাহারটি দেখে থানার ওসি পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort