,

কাশিয়ানীতে নৌকার সমর্থকদের বিরুদ্ধে প্রচারে বাধার অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার সাজাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা, হামলা, ভাংচুর ও হুমকির অভিযোগ উঠেছে সরকার দলীয় প্রার্থী কাজী জাহাঙ্গীর আলমের সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (৫ নভেম্বর) স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মাহাবুবুল আলম সেলিম নিজ বাড়িতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে মটর সাইকেল প্রতীকের সমর্থন ও গণজোয়ার দেখে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী কাজী জাহাঙ্গীর আলম ও তার লোকজন নানা ষড়যন্ত্র করছেন। নিজেরা নৌকা প্রতীক পুড়িয়ে ও ভাংচুর করে আমার সমর্থকদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হয়রানী করার চেষ্টা করছেন। এমনকি আমার কর্মী-সমর্থকদের নানা ধরণের ভয়ভীতি ও হুমকি-ধামকি দেয়া হচ্ছে এবং আমার কয়েকজন সমর্থককে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে টাঙানো নির্বাচনী পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে। ভোট কেন্দ্র দখল করে জাল ভোট দেয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

মটর সাইকেল প্রতীকের প্রার্থী মো. মাহাবুবুল আলম আরও বলেন, গত ৩০ অক্টোবর নৌকা প্রতীক পুড়িয়ে ও ভেঙে আমার সমর্থকদের ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়। বাঁধা দিতে গেলে তিনজন কর্মীকে পিটিয়ে আহত করে। ৩ নভেম্বর নির্বাচনী প্রচার কাজে ব্যবহৃত মাইক ভেঙে ফেলে নৌকার সমর্থকরা। নির্বাচন নিয়ে আমি ও আমার কর্মী-সমর্থকরা শঙ্কিত। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে জেলা নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী কাজী জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘নৌকা বিরোধী কিছু লোকজন ষড়যন্ত্র করছে। তারা নৌকা ভাংচুর করেছে। এলাকাকে অশান্ত করার পাঁয়তারা করছে।’

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort