,

কাশিয়ানীতে অপহরণ মামলার বাদীকে পেটালো আসামীর লোকেরা

কাশিয়ানী প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে শিশু অপহরণ মামলার বাদী বাচ্চু সরদারকে (৬০) পিটিয়ে আহত করেছে আসামী পক্ষের লোকেরা।

গত বুধবার সকালের উপজেলার সাজাইল বাজার থেকে নিজ বাড়ি আমডাকুয়ায় ফেরার পথে এ হামলার শিকার হন তিনি।

আহত বাচ্চু সরদার এখন কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনায় বাচ্চু সরদার বাদী হয়ে কাশিয়ানী থানায় ৯ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা সূত্রে ও বাচ্চু সরদার জানান, গত ২০১৯ সালের ২ আগষ্ট শুক্রবার জুম্মার নামাজ পড়তে গিয়ে বাচ্চু সরদারের শিশু সন্তান মুরসালিন (৬) নিখোঁজ হয়। এ ঘটনার ১৭ দিন পর বাচ্চু সরদার বাদী হয়ে চারজনকে আসামী করে কাশিয়ানী থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় দুইজন আসামীসহ কয়েকজনকে সন্দেজনকভাবে আটক করে পুলিশ। এরপর থেকে আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে নানাভাবে বাদীকে ভয়ভীতি ও হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছিল। এক পর্যায় বুধবার সকালে বাচ্চু সরদার সাজাইল বাজার থেকে বাড়ি ফেরার লেবু শেখের মিষ্টির দোকানের কাছে পৌঁছালে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা মামলার ৩নং আসামী রাইতকান্দি গ্রামের বেদেনা বেগমের বাবা নাজির শেখ ও ভাই আশিক এবং একই গ্রামের নুর ইসলাম, শহিদ শেখ, রাজু শেখ, লেবু শেখ, মঞ্জু শেখ, ডালিম শেখ, সেলিম শেখসহ ৮/১০ জন লোক সংঘবদ্ধ হয়ে বাচ্চু সরদারের পথরোধ করে লোহার রড, হাতুড়ি ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ সময় হামলাকারীরা তাঁর কাছে থাকা টাকাসহ জিনিসপত্র নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় আহত বাচ্চু সরদার বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামী করে কাশিয়ানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

কাশিয়ানী থানার ওসি (তদন্ত) মুহাম্মদ ফিরোজ আলম মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort