,

কাজ শেষ না করেই ‘ঠিকাদার লাপাত্তা’!

জেলা প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জে সাড়ে ৩ বছর অতিবাহিত হলেও সম্পন্ন হয়নি ঐতিহ্যবাহী সাটিয়াজুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ।

জেলার চুনারুঘাট উপজেলার প্রায় ১২শ শিক্ষার্থীর একমাত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এটি। দীর্ঘদিন ধরে নতুন ভবণ নির্মাণ না হওয়ায় ব্যহত হচ্ছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান।

জানা যায়, ২ কোটি ৭৩ লাক্ষ টাকা ব্যয়ে উক্ত ভবনটি নির্মাণে কাজ পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান শাহীন ট্রেডার্স। ২০১৯ সালের শুরুতে স্কুলের বহুতল ভবন নির্মাণে পুরাতন শ্রেণিকক্ষসহ একমাত্র লাইব্রেরি কাম কম্পিউটার কক্ষভেঙে নতুন ভবন ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। যা ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে হস্তান্তর করার কথা। তবে নির্মাণ শুরুর সাড়ে ৩ বছর অতিবাহিত হলেও এখনও কাজ শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। কাজ অসম্পন্ন রেখেই লাপাত্তা হয়ে আছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি। যে কারণে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে ভবনটি। এতে হাজারো শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি অভিভাবক ও জনমনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

সাটিয়াজুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদ উদ্দিন জানান, বারবার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেও ব্যর্থ হচ্ছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কর্ণপাত করছে না। তাছাড়া তাদের মোবাইল নাম্বারে কল দেয়া হলেও তারা রিসিভ না করেই কেটে দিচ্ছেন। নাম্বার প্রায় সময়ই বন্ধ থাকে।

তিনি আরও জানান, নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় হাজারো শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অষ্টম, নবম, দশম শেণির নিয়মিত ক্লাসের ব্যাঘাত ঘটছে। সঙ্গে লাইব্রেরি ভবনকক্ষ না থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের পড়তে হচ্ছে মহাবিড়ম্বনায়। এমতাবস্থায় নির্মাণ কাজ শেষ করা জরুরি।

এ ব্যাপারে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান শাহিন ট্রেডার্স এর স্বত্ত্বাধিকারি শাহিন জানান, করোনা মহামারি ও নানা সমস্যার কারণে নির্মাণ কাজে বিড়ম্বনা হয়েছে। তবে, ‘শিগগিরই কাজ পুনরায় চালু করে দ্রুত সময়ের মধ্যে নির্মান কাজ শেষ করে ভবনটি হস্তান্তর করা হবে বলে দাবি করেন তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর


Antalya korsan taksiAntalya korsan taksi