,

এক যুগ ধরে ভাঙা সেতুতে পারাপার

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: কিশোগঞ্জের হোসেনপুর-পাকুন্দিয়া-ঢাকা সড়কের কাওনা সেতুটি দীর্ঘ এক যুগেও সংস্কার হয়নি। ফলে গুরুত্বপূর্ণ অথচ বেহাল অবস্থার এ সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন ও জনসাধারণ।

বর্তমানে সেতুটির রেলিং ভাঙাসহ বিভিন্ন স্থানে ফাটল ও পলেস্থার ওঠে গিয়ে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে আছে। প্রায় কয়েক যুগ আগে নির্মিত এ সেতু দিয়ে শতশত যানবাহন, স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী ও পথচারী ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে। প্রায়ই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। তাই সেতুটি দ্রুত নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোড়ালো দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কাওনা সেতুসহ ওই রাস্তাটি সংস্কারের জন্য ঢাকার ডলি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্ত দীর্ঘ দিনেও সেতুটি সংস্কার করছে না ওই প্রতিষ্ঠান। এতে জনদুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। ফলে দেখা দিয়েছে স্থানীয় পর্যায়ে চরম ক্ষোভ-হতাশা।

কাওনা সেতু এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, সেতুর উপর কয়েকটি স্থান ভেঙে বড় ফাটল দেখা দিয়েছে এবং গর্তের ফলে লোহার রড বেরিয়ে গেছে। দুর্ঘটনার কবল থেকে যানবাহন ও পথচারীকে রক্ষা করার জন্য স্থানীয়রা কখনো গর্তে গাছের ডাল কিংবা লাল কাপড়ের নিশানা টাঙানোর ব্যবস্থা করেও দুর্ঘটনা থামানো যাচ্ছেনা।

সেতুটি দিয়ে ঢাকাগামী জলসিড়ি বাস, অটোরিকশা, টমটম, নসিমন, কাভার্ডভ্যান, মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহন ও পথচারী অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে।

অটোরিকশা চালক আলাল, রনিসহ অনেকেই জানান, প্রায়ই এ সেতুতে অটোরিকশা উল্টে গিয়ে যাত্রীরা মারাত্মকভাবে আহত হয়।

এ ব্যাপারে হোসেনপুর উপজেলা প্রকৌশলী রাকিবুল আহসান জানান, সেতুটি সংস্কারের জন্য ডলি কনস্ট্রাকশনকে বারবার নির্দেশ দেওয়া হলেও সেতু সংস্কারসহ রাস্তার কাজটি করতে তারা দেরি করছে।

তবে দ্রুত ভাঙা সেতুটি সংস্কারের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সোহেল।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort