,

এক কেজি কলা ৫০ টাকা

জেলা প্রতিনিধি, দিনাজপুর: তরমুজের পর এবার কেজি দরে বিক্রি শুরু হয়েছে পাকা কলা। অভিনব এ পদ্ধতিতে কলা বিক্রি শুরু করছেন দিনাজপুরের হিলির এক ব্যবসায়ী। কেজিপ্রতি দাম রাখছেন ৫০ টাকা। নতুন পদ্ধতি হওয়ায় অনেকেই কেজি দরে কিনেছেন কলা।

শনিবার বিকেলে কলা বিক্রেতার এমন দৃশ্য দেখা মিলেছে হিলি চেকপোস্টে। বিক্রেতার নাম আশরাফ আলী। তার বাড়ি জয়পুরহাটের জামালগঞ্জে।

হিলি চেকপোস্টে গিয়ে দেখা যায়, ভ্যানে কলা সাজিয়ে দোকান বসিয়েছেন আশরাফ। দোকানে তিনি ওজন মাপার মেশিনও রেখেছেন। আর কোনো ক্রেতা এলেই কলা মেপে ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছেন। ওজনে হলেও ৫০ টাকায় ১২-১৩টি কলা পেয়ে খুশি ক্রেতারা।

জানা গেছে, হিলিতে বড় আকারের মালভোগ আর শফরি এক হালি ৩০-৪০ টাকা দরে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। আর ছোট আকারের কলা হালিতে বিক্রি হচ্ছে ২০-৩০ টাকা।

কলা কিনতে আসা আল-আমিন বলেন, নতুন পদ্ধতিতে কলা বিক্রি হচ্ছে। এতদিন হালি হিসেবে কলা কিনেছি। শনিবার কেজি দরে কিনলাম। দেড় কেজি কলা কিনে প্রায় সাড়ে ৪ হালি কলা পেয়েছি। এতে আমার লাভও হয়েছে।

আরেক ক্রেতা আব্দুল আজিজ বলেন, এতদিন হালি হিসেবে কলা বিক্রি দেখতাম। এখন দেখছি কেজিতে বিক্রি। হাফ কেজি কলা কিনলাম ২৫ টাকা দিয়ে। এতে সাতটির মতো কলা পেয়েছি।

কলা ব্যবসায়ী আশরাফ আলী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে হিলিতে কলার ব্যবসা করছি। মালভোগ, শবরি, সাগর, চিনিচাম্পা কলা হালি হিসেবে বিক্রি করতাম। কিন্তু দুদিন হলো কেজি হিসেবে কলা বিক্রি শুরু করেছি। সমস্যা হচ্ছে না, অনেকেই কিনছেন।

হিলি বাজারের কলা ব্যবসায়ী নেপাল বলেন, বর্তমান কিছু ব্যবসায়ী কলা ওজন করে বিক্রি করছেন। ওজনে বিক্রি করলে ব্যবসায়ীর লাভ বেশি। আমি বড় আকারের কলা বিভিন্ন দামে হালি দরে বিক্রি করছি। যদি কেউ কেজি হিসেবে কিনতে চান আমি বিক্রি করবো। বড় আকারের মালভোগ কলা কেজিতে ৮০ টাকা দর হবে।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort