,

‘অহেতুক হয়রানি’; অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যানের

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ:  গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ্ ইশতিয়াক পটুর বিরুদ্ধে একটি মহলের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠেছে।

একটি কুচক্রী মহল নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানা ধরণের মিথ্যা, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ ও নানা অপপ্রচার চালিয়ে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

সোমবার (২৫ এপ্রিল) বেলা ১১ টায় উপজেলার তারাইল বাজারে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন এসব অভিযোগ করেন ইউপি চেয়ারম্যান শাহ ইশতিয়াক পটু।

সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ৮ এপ্রিল আমার ইউনিয়নের তারাইল গ্রামের বাসিন্দা কাজী শাকিরের ওপর অতর্কিত হামলার ঘটনা ঘটে। যা অত্যন্ত দু:খজনক ও নিন্দনীয়। আমি একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। তবে ঘটনার পর শাকির ও তার পরিবার আমার বিরুদ্ধে নানা ধরণের অপপ্রচার করছে। আমাকে জড়িয়ে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা ও ইউটিউব চ্যানেলে সংবাদ প্রকাশ করিয়ে আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করছে। আমি বা আমার কোন লোক এ ঘটনার সাথে জড়িত না।

তিনি আরো বলেন, একটি কুচক্রি মহল আমাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে অহেতুক হয়রানি করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। আমি আধৌও এ ঘটনার ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাথে জড়িত নই। আমি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি, আমি জনগণের সেবা করতে চাই। কারা ঘটনার সাথে জড়িত, তা তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে। আমি এসব মিথ্যা, ভিত্তিহীন সংবাদ ও বিভ্রান্তিমূলক অপপ্রচার এবং গুজবের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। যারা অপপ্রচার চালাচ্ছে সেসব ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মো. বাহাউদ্দিন সরদার লিপু, সাবেক আ’লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দুলু, কাজী বাহার ইকবাল, মো. হায়াত মজুমদার প্রমুখ।

এই বিভাগের আরও খবর


AllEscort